1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
  3. banglarmukh71@gmail.com : admin1 :
  4. : :
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দৈনিক মুক্ত খবরের ২১তম বর্ষ উদযাপিত দাউদকান্দিতে বিকেএ কুমিল্লা (প.) জেলার কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা বুড়িচংয়ে নারীকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা আটক ৩ এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ নেতা বুড়িচংয়ে যাকাত ও ছদাকাত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অসহায়ের মাঝে প্রকল্প বিতরণ বুড়িচংয়ে কৃষি শ্রমিক ইউনিয়নের র‍্যালী অনুষ্ঠিত সাত গ্রামের সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী এড. রেজাউল করিম বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়ন বিএনপির ঈদ পুনর্মিলনী আমরা আছি মানবতার সেবায় সংগঠনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সুলতানপুর ব্যাটালিয়ন ৬০ বিজিবি’ উদ্যোগে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে ইফতার এবং খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

বুড়িচংয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের পর ৯ মাসের অন্তঃস্বত্বা অভিযোগ সবজি ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে!

  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ২৭২ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামে এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর ৯ মাসের অন্তঃস্বত্বা অভিযোগ উঠেছে একই এলাকার সবজি ব্যবসায়ী আক্তার হোসেনের বিরুদ্ধে।উক্ত বিষয়টি ধামাচাপা জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ অসাধু ব্যক্তিরা।

(১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২) সোমবার সন্ধ্যায় সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,উপজেলার পীরযাত্রাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর পূর্বপাড়ার কালু মিয়ার মেয়ে জেসমিন আক্তার(১৬)কে দীর্ঘদিন ধরে অনৈতিক কর্মকান্ড চালিয়ে যায় একই এলাকার জমাগাজীর বাড়ির মনু ফকিরের ছেলে সবজি ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন(৪৫)। অন্তঃস্বত্বা কিশোরীর মা পারুল আক্তার জানান,আমার স্বামী চলে যাওয়ার পর থেকেই মেয়ে জেসমিন আক্তারকে নিয়ে খুব অসহায় অবস্থায় বসবাস করে আসছি। কাজের সন্ধানে মেয়েকে বাড়িতে রেখে বিভিন্ন এলাকায় চলে যাই। এই সুযোগে কোনো একদিন গোবিন্দপুর বাজারের ব্যবসায়ী আক্তার হোসেন আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে। অন্তঃস্বত্বা হওয়ার পর আমি আমার মেয়ের কাছ থেকে স্বীকারোক্তিতে জানা যায়, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে আক্তার হোসেন। এ বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে উভয় পক্ষের স্থানীয় মেম্বার ও সাহেব সর্দাররা মিমাংসার করার জন্য দায়িত্ব নেয় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্য্য করে।এর কয়েক দিন পর নজির সর্দারের মাধ্যমে ১৫ হাজার টাকা কিশোরীর মায়ের হাতে তুলে দিলে ওই কিশোরীর মা পারুল আক্তার টাকা ফেরত দিয়ে দেয়। ন্যার্য বিচার পায়নি বলে প্রতিনিধির কাছে অভিযোগ করেন।

পারুল আক্তার প্রতিনিধিকে আরো জানান, আমার মেয়ে অন্তঃস্বত্বা হওয়ার পর বিয়ে করার জন্য আশ্বাস দেন আক্তার হোসেন। কিন্তু অনেকদিন হয়ে গেলেও সে আমার মেয়েকে বিয়ে করতে আসে নাই। আমি এখন সমাজে মুখ দেখাতে পারছি না।আমি গরীব হওয়াতে সঠিক বিচারও পাই না।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত ব্যক্তি আক্তার হোসেনের কাছে প্রতিনিধি সরাসরি গেলে নিউজ না করার বারং করে মেম্বার আতিকুর রহমান আবুলকে দেখিয়ে দিয়ে তিনি সবজি দোকান ফেলে পালিয়ে যায়।
স্থানীয় কিছু ব্যক্তি নাম প্রকাশ করতে নারাজ,তারা জানান এ ঘনাটি অনেকদিন ধরে এলাকায় চাঞ্চল্যকর অবস্থায় রয়েছে। কিছু অসাধু লোভী সর্দারদের কারণে এ অসহায় পরিবার এখানো বিচার পায়নি। আক্তার হোসেন একজন বিবাহিত পুরুষ। সে কিভাবে এ কিশোরীকে ক্ষতি করতে পারলেন? এর সঠিক বিচার হওয়ার উচিত।

এ বিষয়ে স্থানীয় মেম্বার আতিকুর রহমান আবুলের কাছে জানতে গেলে সে অর্থের লোভ দেখিয়ে নিউজ না করার জন্য নিষেধ করে। কোনো মেয়ে যদি ধর্ষণ বা অন্তঃস্বত্বা হয়ে তাহলে আইনের প্রক্রিয়া নেওয়ার দরকার আছে কিনা এবং মেম্বার বা সর্দাররা বিষয়টি ধামাচাপা দিতে পারে কিনা? প্রশ্ন করলে তিনি জানান, পুলিশ আমাদের ছাড়া কিছুই করতে পারবে না। একথা বলে কিছুক্ষণ পর তিনিও ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবু তাহের জানান,আমাকে স্থানীয় মেম্বার বা কেউ এখনো অবগত করে নাই। আপনার মাধ্যমে শুনেছি।উক্ত ঘটনার প্রকৃতকারণ জানার চেষ্টা করব।

এ বিষয় বুড়িচং থানার ওসি মারুফ রহমান জানান,বিষয়টি আমি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হবে।

শেয়ার করুন
আরো সংবাদ পড়ুন