1. shahalom.socio@gmail.com : admin :
  2. dbcjournal24@gmail.com : ডিবিসি জার্নাল ২৪ : ডিবিসি জার্নাল ২৪
  3. banglarmukh71@gmail.com : admin1 :
  4. : :
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:৪৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
কুমিল্লায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দৈনিক মুক্ত খবরের ২১তম বর্ষ উদযাপিত দাউদকান্দিতে বিকেএ কুমিল্লা (প.) জেলার কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা বুড়িচংয়ে নারীকে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা আটক ৩ এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ নেতা বুড়িচংয়ে যাকাত ও ছদাকাত ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে অসহায়ের মাঝে প্রকল্প বিতরণ বুড়িচংয়ে কৃষি শ্রমিক ইউনিয়নের র‍্যালী অনুষ্ঠিত সাত গ্রামের সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী এড. রেজাউল করিম বুড়িচং উপজেলার ষোলনল ইউনিয়ন বিএনপির ঈদ পুনর্মিলনী আমরা আছি মানবতার সেবায় সংগঠনের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সুলতানপুর ব্যাটালিয়ন ৬০ বিজিবি’ উদ্যোগে দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে ইফতার এবং খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

কুমিল্লায় নানা আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত

  • আপডেট করা হয়েছে বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ১৬৪ বার পড়া হয়েছে

অকৃত্রিম শ্রদ্ধা আর কৃতজ্ঞতায় কুমিল্লায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস। মহান স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধে আত্মত্যাগ করা সকল বীর শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা এবং তাঁদের জীবন-আত্মত্যাগ নিয়ে আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে দিবসটি পালন করেছে জেলা প্রশাসন ও কুমিল্লাবাসী।
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে গতকাল ১৪ ডিসেম্বর সকালে নগর উদ্যান সংলগ্ন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মৃতিস্তম্ভ, পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের স্মৃতিভাস্কর্য ও কুমিল্লা সেনানিবাসে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।
এসময় কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মফিজুর রহমান বাবলু, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক শামীম আলম, পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডক্টর শফিকুর রহমানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও শিক্ষক -শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এদিকে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে গতকাল সন্ধ্যায় কুমিল্লা টাউন হল মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম মঞ্চে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমপি বাহার বলেন, জাতীয় দিবস সমূহের অনুষ্ঠানগুলোতে সকল স্কুলের অষ্টম শ্রেণী থেকে উপরের ক্লাসের শিক্ষার্থীদের ধারাবাহিকভাবে উপস্থিত থাকা চাই। এছাড়া কলেজের শিক্ষার্থীরাও অনুষ্ঠানে আসতে হবে। কারণ, আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং অতিথিগণ যাদের জন্য বক্তব্য রাখেন সেই নতুন প্রজন্ম যদি উপস্থিত না থাকে এসব অনুষ্ঠানে তবে স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর চেতনা ছড়াবে কিভাবে। আমাদের শহীদ বুদ্ধিজীবীদের সম্পর্কেও জানতে হবে জানাতে হবে। তাঁদের মহান আত্মত্যাগেই এই বাংলাদেশ।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মফিজুর রহমান বাবলু, পুলিশ সুপার মোঃ আবদুল মান্নান, কুমিল্লা আদালতের পিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা জহিরুল ইসলাম সেলিম, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোঃ আবু জাফর খান, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক কাজী আবুল বাশার।
এসময় বক্তারা বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানি বাহিনী যখন তাদের পরাজয় নিশ্চিত বলে জেনে যায় তখনই তারা বাংলাদেশের সূর্য সন্তান বুদ্ধিজীবীদের ধরে নিয়ে হত্যা করে। তারা চেয়েছিলে বাংলাদেশকে মেধাশূন্য জাতিতে পরিনত করতে। আলবদর রাজাকারদের সহযোগিতায় পাক হানাদাররা হত্যা করে শহীদুল্লাহ কায়সার, আনোয়ার পাশা, আবদুল আলিম চৌধুরী, মুনীর চৌধুরী, আলতাফ মাহমুদের মত বুদ্ধিজীবীদের। বাংলাদেশের অপূরনীয় ক্ষতি সাধন করে তারা। যুদ্ধে জয় লাভের পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিুবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ আবারো ঘুরে দাঁড়ানো শুরু করে। কিন্তু যুদ্ধে পরাজিত শক্তি ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যা করে। সৌভাগ্য বশতঃ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে এখন দেশ পরিচালনার দায়িত্ব। তিনি এখন সগৌরবে এই দেশকে উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে বুদ্ধিজীবীদের হারানোর যে ক্ষতি সেটি পুষিয়ে উঠে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।
আলোচনা সভা শেষ টাউন হল মুক্ত মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন নজরুল ইন্সটিটিউট কেন্দ্র ও কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমি।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট শিউলি রহমান তিন্নিসহ সহ প্রশাসনের উর্দ্ধতণ কর্মকর্তা ও কুমিল্লার সুশীল সমাজ ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

শেয়ার করুন

কমেন্ট করুন

আরো সংবাদ পড়ুন